পাঠদান পদ্ধতি

  • প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্তরের শিক্ষার্থীদেরকে সার্বক্ষণিক শিক্ষকের তত্ত্বাবধান এবং নিবিড় পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে পাঠদান করা হয়।
  • আরবি ভাষার প্রাথমিক ও মৌলিক কিতাবাদি; যেমন মীযান, পাঞ্জে গঞ্জ, নাহুমীর ইত্যাদি কিতাবাদিকে অনুশীলন ভিত্তিক পাঠ দান করা হয়। যেন, তালেবে ইলম আরবি ভাষায়র মৌলিক নীতিমালা মুখস্থ করার পাশাপাশি সেগুলো আরবি ইবারতে যাথাযথ প্রয়োগ করতে পারে।
  • উচ্চ স্তরের শ্রেণিগুলোতে ইবারতের যথাযথ ব্যাখ্যা, গভীর ও সূক্ষ্ম-অতিসূক্ষ্ম বিষয়গুলোকে সুকৌশলে, সহজে আয়ত্ব করার নিমিত্ত্বে পাঠ দান করা হয়।